April 23, 2015

জোলো কেক Vs. মিষ্টি দই

চকলেট, মিল্ক, ফ্রুট... উইথ এগ আর এগলেস... কেক অনেক খেয়েছি। কিন্ত‍ু ওয়াটার কেক? জলের ও যে কেক হয় তা তো জানতাম না! কিন্ত‍ু water cake is very much there! এটি একটি জাপানী খাদ্য, থুড়ি, মিষ্টি। জিলাটিন পাউডার, চিনির গুঁড়ো আর প্রচুর জল দিয়ে তৈরী একধরনের স্বচ্ছ জেলিসম মিষ্টি। মিজু শিনগেন মোচি, মানে ঔ ওয়াটার কেক সার্ভ করা হয় ব্রাউন সুগার সিরাপ আর রোস্টেড সোয়াবিন পাউডার সহযোগে।

ছবি সৌজন্য : গুগল বাবাজি
রেসিপিটা তো বেশ ইউনিক! লোকমুখে প্রচারিত যে এই ওয়াটার কেক না কি সার্ভ করার ৩০ মিনিটের মধ্যে না উদরস্থ করলেই হাওয়া। এতই ডেলিকেট এই ফ্রোজেন ডেসার্ট যে সাধারন তাপমাত্রার সংস্পর্শে এলেই না কি গলে মিলিয়ে যায়। মজার ব্যাপার!
          
আচ্ছা এমন একটা ম্যাজিক ডেসার্ট যদি আমাদের শহরেও আসে... কেমন হবে? বিশেষ করে বাঙালির মত এক মিষ্টিরসিক জাতীর তো এই মিষ্টি চেখে দেখাটা জন্মগত অধিকার! উফ্ কাল যদি শুনি বলরাম মল্লিক বা সেন মহাশয় এবার এই জাপানী মিষ্টি বানাবে... দারুন হবে না?

মিজু না মোচি? কলকাতায় এলে ঔ জলীয় কেকের কী নাম হবে? রসগোল্লা বা রাজভোগের মত কোন গালভড়া নামই হওয়া উচিৎ। কিন্ত‌ু এতো জলভরা নয়... শুধুই জল দিয়ে গড়া! জাপানে না কি একে আবার অদৃশ্য কেক ও বলে। মজার নাম, কিন্ত‌ু... এত হাল্কা-ফুল্কা নাম কী আর আমাদের মত মিষ্টি-পিপাসুদের পোশাবে?
আচ্ছা নাম নিয়ে নাহয় পরে ভাববো... আগে আসি স্বাদের কথায়। বাঙালির রসনাকে তৃপ্ত করা কিন্ত‌ু মোটেও সহজ না। রীতিমত পরীক্ষা দিতে হবে মিজুকে।
ছবি সৌজন্য : গুগল বাবাজি

“ধুর! অদৃশ্য কেক খাওয়ার চেয়ে তো কিছু না খাওয়াই বেটার!” আমার এক বন্ধুর ধারনা তাই। ঠিকই তো। ভাই আমাদের এত সুন্দর সন্দেশ, রসগোল্লা আর ক্ষীরকদম ছেড়ে কেন হাওয়া আর জল খাব?“কে সি দাসের মিষ্টি দই খেলে না জাপানীরাও তাদের ঔ ওয়াটার কেক ভুলে যাবে।”

নাহ্, বন্ধুর এই উক্তিকে চ্যালেঞ্জ করার সাধ্যি আমার নাই!

আবার ধর ভাবলে বাড়িতে অতিথি এলে তুমি টুক করে পাড়ার দোকান থেকে ওয়াটার কেক এনে খাইয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেবে তা হচ্ছে না। ঔযে আগেই বলেছি, মাত্র ৩০ মিনিটের মধ্যে না খেলেই কেক হাওয়া। ধর তোমার মাসি বা পিসি তুলতুলে ওয়াটার কেক মুখে দিতে গিয়েই দেখল নাই! রীতিমত প্রেস্টিজ পাংচার!
ছবি সৌজন্য : গুগল বাবাজি

অতএব, বাঙালি মিষ্টান্ন জিন্দাবাদ! বন্যরা বনে সুন্দর আর মিজু জাপানে। জলের কেক থাক নাহয় একটা জলভরা সন্দেশ খেয়ে আসি...

No comments:

Post a Comment